1. admin@pekuanews24.com : admin-pekuanews :
  2. mdjalalpekua@gmail.com : jalal uddin : jalal uddin
সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
পেকুয়ায় ৪০ গৃহ ও ভূমিহীন পরিবারকে ঘরের চাবি ও জমির দলিল হস্তান্তর পেকুয়ায় বিপুল পরিমাণ জালনোটসহ মুলহোতা শফি আটক পেকুয়ায় ২ সন্তানের জননীর রহস্যজনক আত্মহত্যা! সাংবাদিক ছফওয়ানুল করিমের উপর সন্ত্রাসী হামলার ৩ দিন পর তার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা! উপকূলীয় সাংবাদিক ফোরামের পেকুয়া ইফতার মাহফিল সম্পন্ন পেকুয়ায় মামলার সাক্ষী দেয়ায় ব্যবসায়ীর বসতবাড়িতে হামলা পেকুয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি ছফওয়ানুল করিমের উপর সন্ত্রাসী হামলায় কর্মরত সাংবাদিকদের বিবৃতি প্রেস বিজ্ঞপ্তি: যুব রেড ক্রিসেন্ট পেকুয়া উপজেলার কমিটি অনুমোদন পেকুয়ায় ইসলামি ব্যাংকের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রাজাখালী ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ খান রাজুর মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন

এমপি জাফরকে আওয়ামী লীগের খন্দকার মোশতাক বললেন – নৌকার প্রার্থী শহীদ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০২১

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ার উজানটিয়া ইউপি নির্বাচনে দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে খন্দকার মোস্তাকের ভূমিকায় কাজ করতেছে সাংসদ জাফর আলম। রাজনৈতিক গ্রুপিং জিঁইয়ে রাখতে তাঁর অনুসারী তোফাজ্জল করিমকে নৌকার বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী করেছেন তিনি। ইতোমধ্যে তাকে বিজয়ী করতে নানা অপকৌশল অবলম্বন করে যাচ্ছেন।
রোববার (দুপুরে) উজানটিয়া ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী এম. শহীদুল ইসলাম চৌধুরী নির্বাচনী প্রচার শেষে এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, “২০১১ সালে আমি প্রথম এই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হই। পরে জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০১৬ সালের ইউপি নির্বাচনে আল্লাহর উপর ভরসা রেখে আমার উপর আস্থা রেখেছেন। তুলে দিয়েছিলেন উন্নয়নের প্রতীক নৌকা। আমি নৌকার মান রেখে বিজয়ী হয়ে উজানটিয়াবাসীর সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি। নেত্রী আবারও আমাকে নৌকা দিয়েছেন। কিন্তু আমাদের এমপি মহোদয় সে নৌকা ডুবাতে উঠেপড়ে লেগেছেন। শেখ হাসিনার মনোনীত প্রতিনিধি হিসাবে বঙ্গবন্ধুর নৌকায় ভর করে তিনি আজ সংসদে গেছেন এখন তা তিনি ভুলে গেলেন।

উজানটিয়াবাসী সাংসদ জাফর আলমকে প্রত্যাখ্যান করেছে উল্লেখ করে নৌকার প্রার্থী শহীদ বলেন, “গত সংসদ নির্বাচনে উজানটিয়ায় আপনি যে সংখ্যা গরিষ্ঠ ভোট পেয়েছিলেন তা আমার কল্যাণে পেয়েছেন। নৌকার কারণে পেয়েছেন। ২০২১ সালের ইউপি নির্বাচনে এসে সে নৌকার বিরোধিতা করার কারণে আপনাকে উজানটিয়াবাসী ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছে। আগামী ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে জনগণ ব্যালটের মাধ্যমে তা দেখিয়ে দিবে। সেদিন নৌকার কাছে বিদ্রোহী প্রার্থী তোফাজ্জল করিমের সাথে আপনিইও হারবেন।”

এসময় বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা আক্তার আহমদ। তিনি বলেন, “এমপি জাফর প্রথম সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর উজানটিয়ায় প্রথম আগমন হয়েছিলো বিএনপি নেতার বাড়িতে। সে বাড়ির আনোয়ার হোছাইন এমজারুল আসন্ন নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী। তাকে অর্থনৈতিকভাবে সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছেন এমপি মহোদয়। মূলত নৌকার প্রার্থীর ভোট ব্যাংক নষ্ট করতেই এমজারুলকে সাপোর্ট দিয়ে যাচ্ছেন তিনি। তাঁর প্রধান লক্ষ্য নৌকা ডুবিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী তোফাজ্জল করিমকে বিজয়ী করা।

এসময় উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি জিয়াবুল হক জিকু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন, আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তাক আহমদ, আবদুল আলীম,মিজানুর রহমান, শাহাদত সোহানসহ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এবাপারে জানতে সাংসদ জাফর আলমের মুঠোফোনে একাধিক চেষ্টার পরেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন........

© All rights reserved © 2020 Pekuanews24.com